সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১সত্য ও সুন্দর আগামীর স্বপ্নে...

পাপুলের আসনে আলোচনায় অ্যাডভোকেট নয়ন

পাপুলের আসনে আলোচনায় অ্যাডভোকেট নয়ন

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি কুয়েতে সাজাপ্রাপ্ত কাজী শহীদুল ইসলাম পাপুলের লক্ষ্মীপুর-২ আসনে উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টির নেতারা মনোনয়ন পেতে আঁটঘাট বেঁধে নেমেছে। তবে এ আসনে আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন আলোচনার শীর্ষে রয়েছে। গত ২২ ফেব্রুয়ারি পাপুলের পদ শূন্য ঘোষণার পর থেকেই রাজনৈতিক ব্যক্তিদের বৈঠকে আলোচনা ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে নয়নের পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছে নেতাকর্মীরা। এ আসনে নৌকার কান্ডারি হিসেবে নয়নকে চাচ্ছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা। এদিকে সুখে দুঃখে অ্যাডভোকেট নয়নকে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা সবসময় কাছে পাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন সংসদীয় আসনের ১০ টি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা। নয়ন একজন দক্ষ সংগঠক হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন। পাপুলের আসনে আওয়ামী লীগের নয়নকে নৌকার মাঝি করে পাঠালে তিনি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবেন। সংসদীয় আসনের উন্নয়নেরও জোরালো ভূমিকা রাখবেন তিনি। এজন্য তৃণমূলের নেতাকর্মীরা নয়নকে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী হিসেবে পেতে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কাছে দাবি জানিয়েছেন। নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক। তিনি সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি। তার নেতৃত্বে জেলা, উপজেলা, পৌর ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতারা ঐক্যবদ্ধ রয়েছে। ইউনিয়ন পর্যায়ের বায়োজৈষ্ঠ্য কয়েকজন নেতা জানায়, লক্ষ্মীপুরে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রকাশ্যে কোন্দল ছিল। ২০১৫ সালে জেলা আওয়ামী লীগের দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে নয়ন নেতাকর্মীদের মাঝে বিভাজন দূর করেছেন। তিনি আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের সুসংগঠিত রেখেছেন। তিনি রামগঞ্জ, রামগতি ও রায়পুর পৌরসভা নির্বাচনে নেতাকর্মীদের নিয়ে নৌকা প্রতীককে জেতাতে নিরলসভাবে কাজ করেছেন। এসব পৌরসভায় নৌকার প্রার্থী মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মহামারি করোনার সমরে ঘরবন্দি হয়ে পড়া প্রায় ১০ হাজার শ্রমিক ও মধ্যবিত্ত পরিবারকে আওয়ামী লীগ নেতা নয়ন ব্যক্তিগতভাবে খাদ্য সামগ্রী দিয়েছেন। অনেককে তিনি আর্থিক সহযোগীতায় করেছেন। মেঘনা উপকূলী এ জেলায় শীতের তীব্রতায় নিজ অর্থায়নে বিপুল সংখ্যক শীতার্তের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছেন। তিনি একাধিক মসজিদ, মাদ্রাসা ও স্কুলের অবকাঠামো উন্নয়নে কাজ করেছেন। ব্যক্তিগত অর্থায়নের পাশাপাশি তিনি স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে সরকারি সহযোগীতার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। দলীয় শতাধিক নেতাকর্মীর চিকিৎসার জন্য তিনি আর্থিক সহযোগীতা দিয়ে পাশে ছিলেন। সবসময় তিনি দলীয় নেতাদের বিপদে আপদে পাশে থাকেন। এজন্য দলমত নির্বিশেষে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের উপ-নির্বাচনের নৌকার প্রার্থী হিসেবে অ্যাডভোকেট নয়নকে চাচ্ছেন সবাই । এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন বলেন, আমি লক্ষ্মীপুরে তৃণমূল পর্যায়ে আওয়ামী লীগকে সুসংগঠিত করেছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিটি সুফল জনগণের মাঝে সুষমভাবে পৌঁছে দেওয়ার জন্য প্রশাসনের সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের সাংগঠনিক তৎপরতা ও মানবিক কর্মকান্ডে দিন দিন আওয়ামী লীগের জনসমর্থন বাড়ছে। দলের নেতাকর্মীরা আমাকে এমপি মনোনয়নের দাবি জানালেও প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তের ওপর আমার শতভাগ আস্থা রয়েছে। অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন ছাড়াও এ আসনে প্রার্থী হিসেবে সাবেক এমপি হারুনুর রশিদ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক এহসানুল কবির জগলুল, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ আলী খোকন, বর্তমান কমিটির উপ-পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সামছুল ইসলাম পাটওয়ারীর পক্ষে নেতাকর্মী ও সমর্থকরা তাদের পক্ষে আলাদা ও বিক্ষিপ্তভাবে প্রচারণা চালাচ্ছেন। ফেসবুক স্ট্যাটাসের পাশাপাশি ইতিমধ্যে ওই নেতাদের পোস্টার-পেস্টুনও বিভিন্ন এলাকায় ঝুলানো হয়েছে। এছাড়া এ আসন থেকে বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য আবুল খায়ের ভূঁইয়া, লক্ষ্মীপুর জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক এম আর মাসুদ ও নোয়াখালী জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক বোরহান উদ্দিন মিঠু দলীয় মনোনয়ন চাচ্ছেন। জাপা নেতা মিঠু রায়পুরের সন্তান। প্রসঙ্গত, ‘কুয়েতে ফৌজদারি অপরাধে চার বছর সশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত হওয়ায় লক্ষ্মীপুর-২ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলকে অপসারণ করা হয়েছে। সংসদ সচিবালয় প্রজ্ঞাপন জারি করে গত ২২ ফেব্রুয়ারি তার পদ শূণ্য ঘোষণা করা হয়। আগামি ১৮ মার্চ এ আসনে মনোয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ও ১১ এপ্রিল ইভিএমের মাধ্যমে এ আসনে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বুধবার (৩ মার্চ) নির্বাচন কমিশন ভবনে বৈঠক শেষে ইসি সচিব হুমায়ুন কবির খোন্দকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।    
  • Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Print
Copy link
Powered by Social Snap