বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯সত্য ও সুন্দর আগামীর স্বপ্নে...

Month: এপ্রিল ২০১৯

লক্ষ্মীপুর মোবাইল ব্যবসায়ী ইউনিটির কমিটি গঠন : আহ্বায়ক সেলিম

লক্ষ্মীপুর মোবাইল ব্যবসায়ী ইউনিটির কমিটি গঠন : আহ্বায়ক সেলিম

লক্ষ্মীপুর, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর জেলা মোবাইল ফোন ব্যবসায়ী ইউনিটির আহ্বায়ক কমিটি গঠিত হয়েছে। এতে প্রধান পৃষ্ঠপোষক করা হয়েছে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও বণিক সমিতির সভাপতি এ কে এম সালাহ্ উদ্দিন টিপু।  সোমবার (৮ এপ্রিল) সন্ধ্যায় শহরের সোনার বাংলা চাইনিজ রেস্টুরেন্টে বিভিন্ন মোবাইল কোম্পানির পরিবেশক ও খুচরা বিক্রেতাদের নিয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। পরে সর্বসম্মতিক্রমে নতুন কমিটি গঠনে নির্বাচন দেওয়ার লক্ষ্যে মো. গোলাম সারওয়ার সেলিমকে আহ্বায়ক ও মো. হারুনুর রশিদকে ১ম যুগ্ম-আহ্বায়ক করে ০৯ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। মতবিনিময় সভায় অতিথি ছিলেন, লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল ইসলাম পাবেল, দৈনিক কালের কন্ঠের লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি কাজল কায়েস, যমুনা টিভির আনিস কবির, সাংবাদিক মীর ফরহাদ হোসেন সুমন, নাজিম উদ্দিন রানা, জামাল উদ্দিন রাফি, কামাল হোসেন ও সুমন দাস প্রমুখ।
ফলকনের সাবেক চেয়ারম্যান ওবায়েদুল হকের ভিটেমাটি গিলছে মেঘনা

ফলকনের সাবেক চেয়ারম্যান ওবায়েদুল হকের ভিটেমাটি গিলছে মেঘনা

কমলনগর, খবর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : বাগানের সারি-সারি নারিকেল-সুপারি গাছ ভেঙে পড়ছে নদীতে। ঢেউ আছড়ে পড়ছে ঘরের পিড়েতে । ঢেউয়ের আঘাতে আঘাতে ভাঙছে ঘর-ভিটে। বিলীন হচ্ছে একের পর এক বসতঘর। তলিয়ে গেছে উঠানের একাংশ। উঠানের ওই প্রান্তে ফলে ফলে ভরে থাকা জাম্বুরা গাছটির দিকে আসছে নদী। গাছটির পাশেই প্রয়াত চেয়ারম্যানের বসতঘর। ধেঁয়ে আসা রাক্ষুসে মেঘনা ওই ভিটে মাটিও খাবে। লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের মেঘনার ভয়াবহ ভাঙনে চর ফলকন ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী চেয়ারম্যান বাড়ি বিলীন হচ্ছে। বাড়ির ৮ পরিবারের মধ্যে ৫ পরিবারের ভিটেমাটি গত এক সপ্তাহের ভাঙনে নদীগর্ভে হারিয়ে গেছে। ভাঙনের মুখোমুখি বাকি তিনটি পরিবারও। ভাঙছে আশ-পাশের বাড়ি, ফসলি জমি ও রাস্তা। চর ফলকন ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক (ইউপি) চেয়ারম্যান ডা. ওবায়েদুল হকের বাড়ি ওই ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে। বাড়ির সামনে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঈদগাঁ, মসজিদ-মক্তব, ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, কমিউনিটি ক্ল
শিক্ষক শহরে, শিক্ষার্থীরা ক্লাসে !

শিক্ষক শহরে, শিক্ষার্থীরা ক্লাসে !

টপ সেকশন-১, রামগতি, শিক্ষা, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : নদীর ওই পাড়ে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ের একমাত্র শিক্ষক মো. জসিম উদ্দিন তিনি থাকেন এই পাড়ে শহরে। নদী পাড়ি দিয়ে বিদ্যালয় যেতে তার অনিহা। মাসে ২/৩ দিন বিদ্যালয়ে গেলেও নির্ধারিত সময়ের আগেই স্কুল ছেড়ে শহরে ফিরেন তিনি। এমন পরিস্থিতিতে শিক্ষা বঞ্চিত হচ্ছে শিশু শিক্ষার্থীরা।   লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার মেঘনার বুকে জেগে উঠা চর আবদুল্লাহ ইউনিয়ন। ওই ইউনিয়নের একটি অবহেলিত গ্রাম তেলির চর। চরের জনতা বাজার সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত চর সেবেজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এর আশেপাশে প্রায় ২শ’ পরিবারের বসবাস। ওইসব পরিবারের শত-শত শিশুর একমাত্র জ্ঞান অর্জনের মাধ্যম বিদ্যালয়টি। তবে বিদ্যালয় থাকলেও নেই পর্যাপ্ত শিক্ষক। মাত্র একজন সহকারী শিক্ষক থাকলেও নিয়মিত উপস্থিতি নেই তার। এতে মারাত্নকভাবে ব্যাহত হচ্ছে পড়া-লেখা। জানা গেছে, মেঘনার ভয়াবহ ভাঙনে ২০১৭ সালের মাঝামাঝিতে চর সেবেজ সরকারি প