সোমবার, ২০ মে ২০১৯সত্য ও সুন্দর আগামীর স্বপ্নে...

খবর

লক্ষ্মীপুরে এক নারী জন্ম দিয়েছেন ৭ সন্তান

লক্ষ্মীপুরে এক নারী জন্ম দিয়েছেন ৭ সন্তান

খবর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুরে এক নারী ৭ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। শহরের সিটি হাসপাতালে স্বাভাবিকভাবে ৭ সন্তানের জন্ম দেন নাজমা আক্তার (১৮)। নাজমা আক্তার লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার লাহারকান্দি এলাকার পাটোয়ারী বাড়ির প্রবাসী মো. রাজুর স্ত্রী। ৭ সন্তানের মধ্যে ৪টি মেয়ে ৩টি ছেলে। শুক্রবার (১২ এপ্রিল) রাত ৯ টা ৪৫ মিনিটে ওই ৭ সন্তানের জন্ম হয়। হাসপাতালের ম্যানেজার ওমর ফারুক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান ৯ টায় ২০ মিনিটে প্রসব বেদনা নিয়ে নাজমা আক্তার হাসপাতালে ভর্তি হয়। ২৫ মিনিট পর স্বাভাবিকভাবে ৭ সন্তানের জন্ম দেন ওই প্রসতি। মা নাজমা আক্তার সুস্থ্য থাকলেও ৭ সন্তান সুস্থ্য নেই বলে জানিয়েছে চিকিৎসক। হাসপাতাল থেকে জানা গেছে, নিদিষ্ট সময়ের আগে (মাত্র ৫ মাসে) সন্তান প্রসব হাওয়া ৭ সন্তান সুস্থ নেই। তাদের চোখ ফোটেনি। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। লক্ষ্মীপুর সিটি হাসপাতালের চিকিৎসক ডা.মো. আবদুল্
লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল নিজ হাতে পরিষ্কার করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান টিপু

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল নিজ হাতে পরিষ্কার করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান টিপু

খবর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগের সভাপতি একেএম সালাহ উদ্দিন টিপু সদর হাসপাতাল নিজ হাতে পরিস্কার করছেন। হাসপাতালের বারেন্দায়, আঙ্গিনায় ও বিভিন্ন ওয়ার্ডে স্থাপন করেছেন বৈদ্যুতিক বাতি। দিয়েছেন টয়লেট ক্লিনার, ব্রাশ, বালতি, ঝাড়ু ও ময়লা রাখার ঝুড়ি । বুধবার (১০ এপ্রিল) রাত ১০ থেকে ১২টা পর্যন্ত যুবলীগ নেতা সালাহ উদ্দিন টিপু হাসপাতালে রোগীদের ব্যবহৃত টয়লেট, মেঝে, দেওয়ালসহ আশপাশের আঙ্গিনা পরিস্কার করেন। এতে অংশ নেন যুবলীগের নেতাকর্মীরা। এসময় হাসপাতালের ভিতর থেকে অন্তত ৪০ বালতি ময়লা বের করা হয়। লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে প্রতিদিন যথাযথভাবে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন না করায় করায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন ওয়ার্ডে বৈদ্যুতিক বাতি নেই, টয়লেট ক্লিনার, ব্রাশ, ঝাড়ু, ঝুড়ি ও বালতি নেই । এসব ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ প্রয়োজনী উদ্যোগ গ্রহণ না করায় উপজেলা চেয়ারম্যার ট
ফলকনের সাবেক চেয়ারম্যান ওবায়েদুল হকের ভিটেমাটি গিলছে মেঘনা

ফলকনের সাবেক চেয়ারম্যান ওবায়েদুল হকের ভিটেমাটি গিলছে মেঘনা

কমলনগর, খবর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : বাগানের সারি-সারি নারিকেল-সুপারি গাছ ভেঙে পড়ছে নদীতে। ঢেউ আছড়ে পড়ছে ঘরের পিড়েতে । ঢেউয়ের আঘাতে আঘাতে ভাঙছে ঘর-ভিটে। বিলীন হচ্ছে একের পর এক বসতঘর। তলিয়ে গেছে উঠানের একাংশ। উঠানের ওই প্রান্তে ফলে ফলে ভরে থাকা জাম্বুরা গাছটির দিকে আসছে নদী। গাছটির পাশেই প্রয়াত চেয়ারম্যানের বসতঘর। ধেঁয়ে আসা রাক্ষুসে মেঘনা ওই ভিটে মাটিও খাবে। লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের মেঘনার ভয়াবহ ভাঙনে চর ফলকন ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী চেয়ারম্যান বাড়ি বিলীন হচ্ছে। বাড়ির ৮ পরিবারের মধ্যে ৫ পরিবারের ভিটেমাটি গত এক সপ্তাহের ভাঙনে নদীগর্ভে হারিয়ে গেছে। ভাঙনের মুখোমুখি বাকি তিনটি পরিবারও। ভাঙছে আশ-পাশের বাড়ি, ফসলি জমি ও রাস্তা। চর ফলকন ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক (ইউপি) চেয়ারম্যান ডা. ওবায়েদুল হকের বাড়ি ওই ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে। বাড়ির সামনে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঈদগাঁ, মসজিদ-মক্তব, ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, কমিউনিটি ক্ল
প্রাথমিক শিক্ষকদের পার্শ্ববর্তী স্কুলে বদলির নির্দেশ

প্রাথমিক শিক্ষকদের পার্শ্ববর্তী স্কুলে বদলির নির্দেশ

খবর, টপ সেকশন-২, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
ঢাকা : পুরনো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে নিকটস্থ নতুন জাতীয়করণ হওয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের পারস্পরিক বদলির নির্দেশ দিয়েছে সরকার। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মানসম্মত শিক্ষা দেওয়ার লক্ষ্যে বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। পুরনো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে নিকটস্থ বা পার্শ্ববর্তী নতুন জাতীয়করণ হওয়া বিদ্যালয় এবং নতুন জাতীয়করণ হওয়া বিদ্যালয় থেকে নিকটস্থ বা পার্শ্ববর্তী পুরনো বিদ্যালয়ে বদলি করে বদলিকৃত শিক্ষকদের তালিকা ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালককে মন্ত্রণালয়ে পাঠাতে বলা হয়েছে। আদেশে বলা হয়েছে, প্রাথমিক শিক্ষাকে সাংবিধানিক অধিকার হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার লক্ষ্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সর্বপ্রথম ১৯৭৩ সালে ৩৬ হাজার ১৬৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেন। পরবর্তীতে ২০১৩ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ
উপজেলা নির্বাচনে যোগ্য প্রার্থীদের জন্য সুখবর

উপজেলা নির্বাচনে যোগ্য প্রার্থীদের জন্য সুখবর

খবর, নির্বাচন, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
সংগঠনের জন্য ত্যাগ, রাজনৈতিক যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও স্থানীয় সাংসদ বা প্রভাবশালী নেতাদের অপছন্দের কারণে উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নবঞ্চিত হওয়ার ঘটনা অতীতে ঘটেছে। এই নিয়ে বিব্রতকর পরিস্থিতিও তৈরি হয়েছে স্থানীয় সরকারের এই নির্বাচনে। তাই আসন্ন পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে যাতে আবারও সেই পরিস্থিতি সৃষ্টি না হয় সেজন্য সতর্ক ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির কয়েক নেতা গতকাল বৃহস্পতিবার দেশ রূপান্তরকে জানিয়েছেন, এবার তৃণমূল নেতারা কোনো যোগ্য প্রার্থীর নাম কেন্দ্রে না পাঠালেও তার যোগ্যতার মূল্যায়ন হবেই। যোগ্য হলে কেন্দ্র থেকে নৌকা প্রতীক তুলে দেওয়া হবে তার হাতেই। এক্ষেত্রে তৃণমূল থেকে নাম এলো কি এলো না, তা বিবেচনায় নেওয়া হবে না। আওয়ামী লীগের ওই কেন্দ্রীয় নেতারা বলেন, তৃণমূলে দ্বন্দ্ব-কোন্দল থাকায়, সংসদ সদস্যদের ক্ষমতা ও প্রভাব বিস্তারের কারণে সব উপজেলা থেকে প্রকৃত যোগ্য