মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯সত্য ও সুন্দর আগামীর স্বপ্নে...

জীবনযাপন

ওজন বাড়ায় যেসব ফল

ওজন বাড়ায় যেসব ফল

জীবনযাপন
ওজন কমানোর জন্য ডায়েটে বেশি পরিমাণ ফল রাখার কথা বলেই থাকেন নিউট্রিশনিস্টরা। কিন্তু ফল স্বাস্থ্যকর হলেও এমন কিছু ফল রয়েছে যেগুলোতে শর্করার মাত্রা বেশি। তাই ওজন কমানোর পথে বাধা বয়ে দাঁড়ায়। কলা: কলার মধ্যে শর্করার মাত্রা বেশি। ফাইবার থাকলেও আরও অনেক ফল রয়েছে যার মধ্যে একই পরিমাণ ফাইবারের সঙ্গে শর্করার পরিমাণ অনেক কম। ড্রাই ফ্রুটস: ড্রাই ফ্রুটসকে স্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস হিসেবে গণ্য করা হলেও ড্রাই ফ্রুটের টাটকা ফলের তুলনায় দ্রুত রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। পেঁপে: এই ফলে চিনির পরিমাণ যেমন বেশি, তেমনই ফাইবার প্রায় নেই বললেই চলে। তাই এক দিকে যেমন রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়ে, তেমনই ফাইবার না থাকায় মেটাবলিজমে সাহায্য করে না পেঁপে। আনারস: খুবই রসাল, সুস্বাদু ফল আনারস। কিন্তু এই ফলে চিনির পরিমাণ অত্যন্ত বেশি যা ওজন কমানোর পথে বড় বাধা। আম: গরমে আম খেতে সকলেই ভালোবাসেন। কিন্তু ওজন কম
নেতা হতে চাইলে যে ৭ গুনাবলী প্রয়োজন

নেতা হতে চাইলে যে ৭ গুনাবলী প্রয়োজন

জীবনযাপন, টপ সেকশন-২
জীবনে কোনো না কোনো সময় আপনাকেও নেতৃত্বের হাল ধরতে হয়। এমনকি সংসারটিকে সুন্দরভাবে চালাতেও নেতৃত্ব দিতে হয়। সুষ্ঠু নেতৃত্ব একটি বিশেষ গুণ। ভালো নেতা হওয়ার জন্য বিশেষজ্ঞরা আপনাদের সাতটি খুব সাধারণ পথ বাতলে দিচ্ছেন। ১. একজন আদর্শ নেতা বেছে নিন বিশ্বের সব নেতাই ভিন্ন গুণের অধিকারী। একেক জনের একেকটি গুণ আপনাকে মুগ্ধ করবে। তাদের মধ্য থেকে পছন্দসই একজনকে আপনার আদর্শ হিসেবে বেছে নিন। তিনি কীভাবে তার প্রতিদিনের কর্মপরিকল্পনা ঠিক করতেন এবং চ্যালেঞ্জসমূহের মোকাবেলা করতেন তা জানার চেষ্টা করুন। ২. ইতিবাচক হোন সব বিষয়ে নেতিবাচক হলে কোনো কাজে সফলতা দেখবেন না। সবকিছু ব্যর্থতায় ডুবে যাবে। অন্যদিকে, সবকিছুর মধ্যে ইতিবাচক কিছু বের করার চেষ্টা করলে সমস্যার সমাধান বের হয়। আর নেতা হিসেবে সব সমস্যার মোকাবেলা করতে হলে ইতিবাচক হতে হবে। ৩. নতুন ধারণাকে উৎসাহ দেওয়া নেতা হওয়া মানে এই নয় যে সব কথা আপনাকেই ব
গর্ভাবস্থায় যে ফলগুলো খাবেন

গর্ভাবস্থায় যে ফলগুলো খাবেন

জীবনযাপন
অন্যান্য সময়ের থেকেও গর্ভাবস্থায় খাবারের বিষয়ে সচেতন থাকতে হয়। কারণ এ সময়ে শুধু একটি নয়, দুটি শরীরের পুষ্টি যোগাতে হয়। ভিটামিন ও পুষ্টি পেতে গর্ভাবস্থায় কিছু ফল খাওয়া জরুরি। লাইফস্টাইলবিষয়ক ওয়েবসাইট বোল্ডস্কাইয়ের স্বাস্থ্য বিভাগে জানানো হয়েছে যেসব ফল গর্ভাবস্থায় জরুরি সেগুলোর কথা- অনেকে মনে করেন গর্ভাবস্থায় আঙ্গুর খাওয়া ঠিক নয়। তবে আঙুরে রয়েছে ভিটামিন এ। ফোলেট, পটাশিয়াম, ফসফরাস, ম্যাগনেসিয়াম, সোডিয়াম এগুলোও পাওয়া যায় আঙুরে। তাই এ ফল গর্ভাবস্থায় খেতে পারেন। লেবু হজম ভালো করে, বমিভাব ও সকালের ক্লান্তিভাব দূর করে। এ ছাড়া লেবু শরীরের বিষাক্ত পদার্থ দূর করতেও কাজে দেয়। গর্ভাবস্থায় কোষ্ঠকাঠিন্য খুব প্রচলিত সমস্যা। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে এ সময় কলা খেতে পারেন। এ গ্রীষ্মকালীন ফলটি শুধু সুস্বাদুই নয়, এর মধ্যে আছে স্বাস্থ্যকর অনেক উপাদান। রয়েছে ভিটামিন এ ও ভিটামিন সি। গর্ভাবস্থায় এ ফল বেশ
মাছ খেলে বুদ্ধি বাড়ে

মাছ খেলে বুদ্ধি বাড়ে

জীবনযাপন
মাছে-ভাতে বাঙালি। পাতে মাছ না থাকলে বাঙালির রসনাবিলাশ যেন পূর্ণ হয় না। সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, মাছ খেলে বুদ্ধি বাড়ে। মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা জানালো মাছ খেলে কীভাবে বুদ্ধি বাড়ে। আর সেটা শুরু হয় শৈশব থেকেই। (more…)
ঝাল ঝাল ভাপা পিঠা

ঝাল ঝাল ভাপা পিঠা

জীবনযাপন
ভাপা পিঠার নাম শুনলেই মিষ্টি গুড় আর নারকেলের লোভনীয় ঘ্রাণ নাকে চলে আসে? মজার ব্যাপার হলো ভাপা পিঠা শুধু মিষ্টি স্বাদেরই নয়, তৈরি করা যায় ঝাল স্বাদেরও। রইলো ঝাল ভাপা পিঠা তৈরির রেসিপি- উপকরণ: চালের গুঁড়া ৪ কাপ, লবণ আন্দাজমতো, ধনেপাতা কুচি ১ কাপ, কাঁচামরিচ কুচি দুটি ও পেঁয়াজ কুচি একটি। প্রণালি: চালের গুঁড়ায় লবণ ও পানি মেশান। এমন আন্দাজে পানি মেশান, যেন গুঁড়া ভেজা মনে হয় অথচ দলা না বাঁধে। পানি মেশানোর পর হাত দিয়ে চালের গুঁড়া মসৃণ করে চেলে নিন। যে পাত্রে পিঠা তৈরি করবেন তাতে গলা পর্যন্ত পানি দিয়ে ফুটতে দিন। পিঠা তৈরির জন্য ছোট ছোট দুটি বাটি ও দুই টুকরো পাতলা কাপড় নিন। বাটিতে গুঁড়া দিয়ে মাঝখানে ধনেপাতা কুচি, কাঁচামরিচ কুচি ও পেঁয়াজ কুচি দিয়ে আবার গুঁড়া দিয়ে বাটি ভরে সমান করে দিন। চাপ দেবেন না। এক টুকরা কাপড় ভিজিয়ে নিংড়ে বাটির গুঁড়া ঢেকে দিয়ে উল্টে পিঠা তৈরির পাত্রের মুখে বসান। বাটি সাবধান