সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯সত্য ও সুন্দর আগামীর স্বপ্নে...

জীবনযাপন

নখ কামড়ানো বাজে অভ্যেস

নখ কামড়ানো বাজে অভ্যেস

জীবনযাপন
নখ কামড়ানোর অভ্যাস ছোটদের ক্ষেত্রে বেশি দেখা যায়। কিন্তু এই অভ্যাস থেকে দূরে সরে নেই বড়রাও। অনেক প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিরও নখ কামড়ানোর অভ্যাস থাকে। আমাদের নখে অনেকরকম জীবাণু থাকতে পারে। আর নখ কামড়ানোর মাধ্যমে সেসব জীবাণু সহজেই শরীরে প্রবেশ করতে পারে। বড়রা নখ খেলে আমরা বুঝতে পারি যে, কোনোরকম উদ্বেগ বা উত্কণ্ঠা থেকেই এমন কাজ করছেন তারা। তবে বিজ্ঞানীদের আবিষ্কারে শুধু এটি বাজে অভ্যেস হিসেবেই থাকেনি, বরং এর সঙ্গে এক অদ্ভুত ব্যক্তিত্ব ফুটে উঠেছে। নখ কামড়ানো মানুষেরা কিছুটা আলাদা বৈশিষ্ট্যের হয়ে থাকেন। বিজ্ঞানীদের ভাষায় এটি অনিকোফাগিয়া নামে পরিচিত। তারা বলছেন, কলম চিবুনো, নিজের চুল টানা এমনই স্বভাবের ভাগে পড়ে নখ খাওয়া। এরা শুধু স্ট্রেস বা উদ্বেগই নয়, এক ধরনের পারফেকশনিস্ট হন। মন্ট্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা একে বলেছেন, নখ খাওয়া মানুষেরা রিল্যাক্স করতে পারেন না, যেকোনো কাজ করতেই থাকেন।
ওরা আর ফিরবে না…

ওরা আর ফিরবে না…

জীবনযাপন, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : বিড়াল তিনটি ছিলো ইঁদুরের জম। স্বভাবে ভদ্র হলেও তারা ইঁদুরের জন্য ছিল অভদ্র। এছাড়া সারাদিন ছুটে বেড়াতো ঘরের এক রুম থেকে অন্য রুমে। কিন্তু হঠাৎ করে বিড়ালগুলোর দেখা মিলছিল না। বাড়ির আশপাশে কোথাও দেখাও যাচ্ছিল না। খাওয়ার সময় আগের মত জালাতনও করছিল না। (more…)
ইফতারে মজাদার ডিমের চপ

ইফতারে মজাদার ডিমের চপ

জীবনযাপন, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
মেঘনারপাড় ডেস্ক : ইফতারে নানারকম চপ ছাড়া যেন চলেই না। ডিম দিয়েও তৈরি করা যায় মজাদার চপ। খেতে ভীষণ সুস্বাদু আর তৈরি করতে সময়ও লাগে কম। তবে অবশ্যই বাইরে থেকে নয়, ঘরেই তৈরি করুন এই ডিমের চপ। রইলো রেসিপি- (more…)
ধূমপান ছাড়তে চাইলে যা করবেন

ধূমপান ছাড়তে চাইলে যা করবেন

জীবনযাপন
ধূমপায়ীর সংখ্যা যেমন বাড়ে, তেমন ছাড়ার সংখ্যাও কম নয়। তবে অনেকে ধূমপান ছাড়ার ঘোষণা দিয়েও ছাড়তে পারেন না। তাদের জন্য রয়েছে কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি। যা ধূমপানের নেশাকে ছাড়াতে দারুণ কাজ করে। এ ক্ষেত্রে ধৈর্য ধরে এ পদ্ধতিগুলো কাজে লাগাতে হবে। আসুন দেখে নেই পদ্ধতিগুলো- মরিচের গুঁড়া এক গ্লাস পানিতে অল্প মরিচের গুঁড়া ফেলে সেই পানি পান করলে ফুসফুসের ক্ষমতা বাড়ে। সেই সঙ্গে ধূমপানের কারণে লাংয়ের যে ক্ষতি হয়, তা ধীরে ধীরে কমে। এছাড়া ধূমপানের ইচ্ছাও কমে। মুলেঠি ধূমপানের নেশা ছাড়াতে মুলেঠি বিশেষ ভূমিকা পালন করে। নিয়মিত মুলেঠি চিবানো শুরু করলে একদিকে যেমন ধূমপানের ইচ্ছা কমে, তেমনি নানাবিধ পেটের রোগের প্রকোপও হ্রাস পায়। মুলা ১ গ্লাস মুলার রসের সঙ্গে পরিমাণমতো মধু মিশিয়ে দিনে দু’বার খেলে ধূমপানের ইচ্ছা একেবারে কমে যায়। আঙুর আঙুরের রস শরীরের ভেতরে জমতে থাকা টক্সিন বের করে নেয়। ফলে একদি
যে কারণে পেয়ারা খাবেন

যে কারণে পেয়ারা খাবেন

জীবনযাপন
পেয়ারায় আঁশ, পানি, কার্বহাইড্রেট, প্রোটিন, ভিটামিন এ, ভিটামিন কে, পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ফসফরাস, ক্যালসিয়াম ইত্যাদি খাদ্য পুষ্টি উপাদান রয়েছে। এছাড়া রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি ও খনিজ পদার্থ। বিশেষজ্ঞদের মতে, একটি পেয়ারায় ৪টি কমলালেবুর সমান পুষ্টিগুণ বিশেষ করে ভিটামিন সি রয়েছে। তাই সম্ভব হলে প্রতিদিন ১টি করে আর না হলে সপ্তাহে অন্তত একটি করে হলেও প্রতিটি মানুষের পেয়ারা খাওয়া উচিত। চলুন জেনে নেই পেয়ারার আরো কিছু উপকারিতা- উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ রাখতে পেয়ারা বেশ কার্যকর। ওজন কমাতে, কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে এবং মুখের রুচি বাড়াতেও জুড়ি নেই পেয়ারার। তাই যারা পেটের সমস্যায় ভুগছেন তারা নির্দ্বিধায় এটি খেতে পারেন। এতে ইনফেকশনরোধী উপাদান রয়েছে যা হজমক্রিয়া শক্তিশালী করে।রক্তসঞ্চালণ ভালো রাখে। ফলে হার্টের রোগীরা এটি নিয়মিত খেতে পারেন। অ্যাজমা, ঠান্ডা-কাশিতে কাঁচা পেয়ারার জুস বেশ উপকার