বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯সত্য ও সুন্দর আগামীর স্বপ্নে...

কমলনগর

কমলনগরে মেঘনার ভাঙন প্রতিরোধের দাবিতে ফের মানববন্ধন

কমলনগরে মেঘনার ভাঙন প্রতিরোধের দাবিতে ফের মানববন্ধন

কমলনগর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : মেঘনা নদীর ভাঙন প্রতিরোধে নদীর তীর রক্ষা বাঁধ নির্মাণের দাবিতে আবারও লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে মানববন্ধন করা হয়েছে। বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকাল ১০ টায় কমলনগরের মেঘনা নদীর পাড়ের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় মানববন্ধন করা হয়। কমলনগর-রামগতি বাঁচাও মঞ্চ এ আয়োজন করে। এর আগেও বিভিন্ন সময় কমলনগর নদীভাঙন প্রতিরোধ কমিটি, কমলনগর সুরক্ষা ফোরামসহ বিভিন্ন সংগঠন নদী ভাঙন প্রতিরোধে কার্যকর প্রদক্ষেপ গ্রহণে মানববন্ধন, প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান ও সড়ক অবরোধসহ নানান কর্মসুচী পালন করে। ওইসব মানববন্ধনে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, জনপ্রতিনিধি ও ব্যবসায়ীরাসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশ নেয়। এবারের মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন কমলনগর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোহাম্মদ শামছুল আলম, ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা হুমায়ুন কবির, আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল মতলব, অ্যাডভোকেট আবদুস সাত্তার পলোয়
কমলনগরের মেঘনায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ নিধন চলছে

কমলনগরের মেঘনায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ নিধন চলছে

কমলনগর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি ও জাটকা রক্ষায় লক্ষ্মীপুরের মেঘনায় দুই মাস সব ধরনের মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও আইন মানছেনা জেলেরা। প্রতিদিন কমলনগরে সারি-সারি নৌকা নিয়ে শত-শত জেলে মহোসৎবে জাটকাসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ নিধন করছেন। মৎস্য বিভাগ, কোস্টগার্ড ও স্থানীয় প্রশাসনের প্রয়োজনীয় তৎপরতা না থাকায় এবং আইনের যথাযথ প্রয়োগ না হওয়ায় মাছ শিকার চলেছ। দাদনদার-মহাজনরা সংশ্লিষ্টদের ম্যানেজ করে জেলেদের নদীতে পাঠায় এমন অভিযোগ সবার মুখে মুখে। এমন পরিস্থিতিতে মাছের উৎপাদন ব্যাহত হয়ে সরকারের কাঙ্খিত উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন না হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। সোমবার বিকালে ও মঙ্গলবার সকালে কমলনগরের মেঘনা নদীর বিভিন্ন এলাকায় সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, জেলেরা নিবিঘেœ মাছ শিকার করছেন। বেশির ভাগ জেলে জাটকা শিকারে ব্যবহার করছেন অবৈধ কারেন্ট জাল। বাঁধা জাল দিয়ে মারছেন ইলিশের পোনা। মশারি জাল দিয়ে নিধন করছে পোয়ামা
ফলকনের সাবেক চেয়ারম্যান ওবায়েদুল হকের ভিটেমাটি গিলছে মেঘনা

ফলকনের সাবেক চেয়ারম্যান ওবায়েদুল হকের ভিটেমাটি গিলছে মেঘনা

কমলনগর, খবর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : বাগানের সারি-সারি নারিকেল-সুপারি গাছ ভেঙে পড়ছে নদীতে। ঢেউ আছড়ে পড়ছে ঘরের পিড়েতে । ঢেউয়ের আঘাতে আঘাতে ভাঙছে ঘর-ভিটে। বিলীন হচ্ছে একের পর এক বসতঘর। তলিয়ে গেছে উঠানের একাংশ। উঠানের ওই প্রান্তে ফলে ফলে ভরে থাকা জাম্বুরা গাছটির দিকে আসছে নদী। গাছটির পাশেই প্রয়াত চেয়ারম্যানের বসতঘর। ধেঁয়ে আসা রাক্ষুসে মেঘনা ওই ভিটে মাটিও খাবে। লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের মেঘনার ভয়াবহ ভাঙনে চর ফলকন ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী চেয়ারম্যান বাড়ি বিলীন হচ্ছে। বাড়ির ৮ পরিবারের মধ্যে ৫ পরিবারের ভিটেমাটি গত এক সপ্তাহের ভাঙনে নদীগর্ভে হারিয়ে গেছে। ভাঙনের মুখোমুখি বাকি তিনটি পরিবারও। ভাঙছে আশ-পাশের বাড়ি, ফসলি জমি ও রাস্তা। চর ফলকন ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক (ইউপি) চেয়ারম্যান ডা. ওবায়েদুল হকের বাড়ি ওই ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে। বাড়ির সামনে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঈদগাঁ, মসজিদ-মক্তব, ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্র, কমিউনিটি ক্ল
মেঘনার ভাঙন রোধে কাজ করা হবে : মেজর (অব.) আবদুল মান্নান

মেঘনার ভাঙন রোধে কাজ করা হবে : মেজর (অব.) আবদুল মান্নান

কমলনগর, টপ সেকশন-১, রামগতি, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : বিকল্পধারার মহাসচিব ও লক্ষ্মীপুর-৪ (কমলনগর-রামগতি) আসনের সংসদ সদস্য মেজর (অব.) আবদু মান্নান বলেছেন, লক্ষ্মীপুরের কমলনগর-রামগতি উপজেলায় মেঘনার ভয়াবহ ভাঙনে বিস্তৃর্ণ জনপথ বিলীন হয়ে গেছে। সারাবছর ধরে অব্যাহত ভাঙনে এখানকার মানুষ অসহায়। এ ভয়াবহ ভাঙন থেকে রক্ষায় কাজ করা হবে । শীঘ্রই ১৪০০ মিটার কাজ করা হবে। এছাড়াও আরও ১৫ কিলোমিটার কাজের জন্য মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের চেষ্টা করা হচ্ছে। শনিবার (৩০ মার্চ) দুপুরে উপজেরার মাতাব্বরহাট নদী তীর রক্ষা বাঁধ পরিদর্শণ কালে পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, আমি শুধু দলের নয়; সকলের এমপি। সবাই আমার কাছে সমান। আমি সবার কথা শুনবো; এলাকার উন্নয়নের চেষ্টা করবো। সুখে-দুঃখে আপনাদের পাশে থাকবো। কমলনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম নুরুল আমিন মাস্টারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন মেজর (অব.) আবদুল মান্নানের সহধর্মিনী
জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী সুমি

জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী সুমি

কমলনগর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী  সাজেদা আক্তার সুমি জয়ের ব্যাপারে আশাবাদি। তিনি কলস প্রতিক নিয়ে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় এগিয়ে রয়েছেন। উপজেলার প্রতিটি হাট-বাজার, গ্রাম-গঞ্জে, প্রচার-প্রচারণা ও পথসভা করেছেন। পাড়া-মহল্লা, এবং বাড়ি-বাড়ি করেছেন উঠান বৈঠক। ঘরে ঘরে গিয়ে চেয়েছেন ভোট্ ও দোয়া। ইতিমধ্যে কলস প্রতিকে জনমত সৃষ্টি হয়েছে।  সাড়া পাচ্ছেন সবার। বিপুল সংখ্যক ভোটার সুমির ডাকে সাড়া দিয়ে তার জন্য ভোট করছেন।বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ তাকে নিয়ে স্বপ্ন দেখছেন। তাকে দেখতে চান ভাইস চেয়ারম্যান হিসাবে। স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা গেছে, কলস প্রতিকের প্রার্থী সাজেদা আক্তার সুমি অন্যান্য প্রার্থীর চেয়ে এগিয়ে।ছাত্রজীবন থেকে রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত সুমী। তিনি কর্মী গড়ার কারিগর। তার হাত ধরে কমলনগরের মহিলা আওয়ামী লীগ চাঙ্গা। তার নিজস্ব ভোট ব্য