সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯সত্য ও সুন্দর আগামীর স্বপ্নে...

অর্থনীতি

তিনটি ব্যাংকের অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

তিনটি ব্যাংকের অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

অর্থনীতি, খবর
ঢাকা: দু’টি নয় সরকার তিনটি ব্যাংকের অনুমোদন দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। সোমবার (২৭ নভেম্বর) বেলা ৪টায় ঢাকা ক্লাবে বিমা বিষয়ক এক সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান। অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘দুটি নয়, তিনটি ব্যাংক অনুমোদন দেয়া হচ্ছে।’ দেশে ব্যাংক খাতের অবস্থা এমনিতেই ভালো নয় এবং ব্যাংকের সংখ্যাও অনেক বেশি। ব্যাংকের নতুন করে অনুমোদন দিলে সমস্যা আরো বাড়বে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটা কোনো বিষয় না। যাদের সমস্যা আছে সেগুলোর মার্জারের সুযোগ রয়েছে। লিকুইডিটি (তারল্য) মানির ওপরও প্রভিশন সংরক্ষণ করা আছে।’ অর্থমন্ত্রী আরো যুক্তি তুলে ধরে বলেন, দেশে এখনো অনেক এলাকা আছে যেখানে এখনো ব্যাংকিং কার্যক্রম নেই। তবে দুটি ব্যাংক আলোচনায় আসলেও নতুন আরেকটি ব্যাংক কোনটি জানতে চাইলে তিনি বলেন, অনুমদোন হয়ে গেলেই আপনারা জানতে পারবেন। জানা গেছে, তিনটির মধ্যে একট
লক্ষ্মীপুর থেকে ২৮ দেশে রপ্তানি হয় বেঙ্গলের জুতা

লক্ষ্মীপুর থেকে ২৮ দেশে রপ্তানি হয় বেঙ্গলের জুতা

অর্থনীতি, খবর, রায়পুর, সাফল্য
বেঙ্গল শুর সুনাম ছড়িয়ে পড়ছে ইউরোপ-আমেরিকায়। বর্তমানে ইতালি, জার্মানি, ইংল্যান্ড, ব্রাজিল, বেলজিয়াম, ফ্রান্স, কানাডা ও জাপানসহ ২৮টি দেশে রপ্তানি হচ্ছে। এ ছাড়া আরো কয়েকটি দেশে ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ী পণ্য সরবরাহ করা হয়েছে। লক্ষ্মীপুরে অবস্থিত এই কারখানায় প্রায় দেড় হাজার শ্রমিক কাজ করছে। সেখানে প্রতি মাসে দেড় লাখ জোড়া জুতা তৈরির সক্ষমতা রয়েছে। গ্রামের সাধারণ শ্রমিকের হাতে শতভাগ রপ্তানিমুখী চামড়াজাত জুতা তৈরি হচ্ছে প্রতিষ্ঠানটিতে। রায়পুর উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের রাখালিয়া গ্রামে ১৬ একর জায়গাজুড়ে বেঙ্গল শু ইন্ডাস্ট্রির অবস্থান। শিল্পপতি টিপু সুলতান পরিবার এ প্রতিষ্ঠানটি গড়ে তোলেন। ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রতিষ্ঠানটি উৎপাদনে আসে। উৎপাদিত এক কাভার্ড ভ্যান শু একই বছরের ১৪ আগস্ট প্রথম ইউরোপে রপ্তানির মাধ্যমে কার্যক্রম শুরু হয়। সম্প্রতি সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, কারখানাটি থেকে প্রতিদিন রপ্
২০১৮-১৯ অর্থবছরে চার লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট

২০১৮-১৯ অর্থবছরে চার লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট

অর্থনীতি
অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আগামী ২০১৮-১৯ অর্থবছরে চার লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট দেয়ার পরিকল্পনা করছেন। তিনি রোববার অর্থ মন্ত্রণালয়ে সমন্বয় সভা এবং বাজেট মনিটরিং অ্যান্ড রিসোর্স কমিটির (বিএমআরসি) সভা শেষে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা চলতি অর্থবছরের জন্য চার লাখ ২৬৬ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা করেছি। চলতি অর্থবছরের সম্পূরক বাজেট হবে তিন লাখ ৭১ হাজার কোটি টাকা। আমরা পরবর্তী অর্থবছরের জন্য চার লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দের পরিকল্পনা করেছি।’ বাজেটের এই পরিমাণকে তিনি প্রাথমিক সূচক উল্লেখ করে বলেন, আগামী (২০১৮) ফেব্রুয়ারিতে পরবর্তী বাজেটের টাকার প্রকৃত পরিমাণ নির্ধারণ করা হবে। মুহিত বলেন, আগামী বাজেটই হবে বর্তমান সরকারের এই মেয়াদের শেষ বাজেট। অতএব আমি মনে করি, ঠিক এখনই ওই বাজেট সম্পর্কে আমাদের ভালোভাবে চিন্তাভাবনা শুরু করা উচিত। তিনি বলেন, ‘আগামী বাজেটে কোনো নতুন উদ্যোগ থাকবে না। সেটা কোনো
চাকরি জাতীয়করণের দাবিতে ইউসিসিএ  কর্মচারীদের স্মারকলিপি

চাকরি জাতীয়করণের দাবিতে ইউসিসিএ কর্মচারীদের স্মারকলিপি

অর্থনীতি, মুক্তকথা
লক্ষ্মীপুরে বিআরডিবি’র অধিভুক্ত উপজেলা কেন্দ্রীয় সমবায় সমিতি লিমিটেডের (ইউসিসিএ) কর্মচারীদের চাকরি জাতীয়করণসহ ৫ দফা দাবিতে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে লক্ষ্মীপুর জেলা বিআরডিবি কার্যালয়ের উপ-পরিচালকের মাধ্যমে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি’র) মহা-পরিচালক বরাবর এ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। বাংলাদেশ ইউসিসিএ কর্মচারী ইউনিয়ন লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ এ স্মারকলিপি প্রদান করেন। এসময় লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার সভাপতি আবদুস শহিদ, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলমসহ জেলার রামগতি, কমলনগর, রায়পুর, রামগঞ্জ ও সদর উপজেলার ইউসিসিএ’র কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন। স্মারকলিপিতে চাকরি জাতীয়করণ, বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের ৪৪তম সভার সিন্ধান্ত বাস্তবায়ন ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারীদের সকল সুবিধা নিশ্চিত করণসহ ৫ দফা দাবি জানানো হয়।
লক্ষ্মীপুরে ৪৮ বীজাগার ব্যবহার অযোগ্য

লক্ষ্মীপুরে ৪৮ বীজাগার ব্যবহার অযোগ্য

অনিয়ম, অর্থনীতি, কৃষি, খবর, টপ সেকশন-২, সদর
লক্ষ্মীপুরের প্রান্তিক কৃষকদের কল্যাণে ষাটের দশকে কৃষি বিভাগ ৫২টি ইউনিয়নে একটি করে বীজাগার স্থাপন করে। ওইসব বীজাগারের মধ্যে এখন ৪৮টি ব্যবহারের অযোগ্য। যে কারণে এখানকার কৃষকরা বীজাগারের সুফল পাচ্ছেন না।এতে কৃষি উৎপাদন ব্যহত হচ্ছে। সম্প্রতি জেলার কয়েকটি ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে, অব্যবহৃত এসব বীজাগারের দেয়াল ও ছাদের পলেস্তরা খসে পড়ছে, দরজা-জানালা ভাঙ্গা। ঝাঁপ-ঝোপে শিয়াল-কুকুরের বসবাস। ভূতুড়ে পরিবেশে মাদকসেবীদের আড্ডা।এদিকে, রামগতিতে মেঘনার ভাঙনেও একটি বিলীন হয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জেলার সব বীজাগারের ভবন জরাজীর্ণ।   নির্মাণের পর সংস্কার না করায় ব্যবহারের অনুপযোগী এসব ভবনপরিত্যক্ত রয়েছে। স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তিরা প্রায় অর্ধেক জমি দখল করে ব্যক্তিগত কাছে ব্যবহার করছেন। অন্যগুলোও দখলে নেওয়ারপাঁয়তারা করছেন। কেবলমাত্র তিনটি বীজাগার ব্যবহার করছে কৃষি বিভাগ। স্থানীয় প্রবীন কৃষকরা জানান, ইউনিয়ন