বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯সত্য ও সুন্দর আগামীর স্বপ্নে...

Author: meghnarpar

কমলনগরে মেঘনার ভাঙন প্রতিরোধের দাবিতে ফের মানববন্ধন

কমলনগরে মেঘনার ভাঙন প্রতিরোধের দাবিতে ফের মানববন্ধন

কমলনগর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : মেঘনা নদীর ভাঙন প্রতিরোধে নদীর তীর রক্ষা বাঁধ নির্মাণের দাবিতে আবারও লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে মানববন্ধন করা হয়েছে। বুধবার (২৪ এপ্রিল) সকাল ১০ টায় কমলনগরের মেঘনা নদীর পাড়ের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় মানববন্ধন করা হয়। কমলনগর-রামগতি বাঁচাও মঞ্চ এ আয়োজন করে। এর আগেও বিভিন্ন সময় কমলনগর নদীভাঙন প্রতিরোধ কমিটি, কমলনগর সুরক্ষা ফোরামসহ বিভিন্ন সংগঠন নদী ভাঙন প্রতিরোধে কার্যকর প্রদক্ষেপ গ্রহণে মানববন্ধন, প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান ও সড়ক অবরোধসহ নানান কর্মসুচী পালন করে। ওইসব মানববন্ধনে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, জনপ্রতিনিধি ও ব্যবসায়ীরাসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশ নেয়। এবারের মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন কমলনগর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোহাম্মদ শামছুল আলম, ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা হুমায়ুন কবির, আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল মতলব, অ্যাডভোকেট আবদুস সাত্তার পলোয়
লক্ষ্মীপুরে এক নারী জন্ম দিয়েছেন ৭ সন্তান

লক্ষ্মীপুরে এক নারী জন্ম দিয়েছেন ৭ সন্তান

খবর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুরে এক নারী ৭ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। শহরের সিটি হাসপাতালে স্বাভাবিকভাবে ৭ সন্তানের জন্ম দেন নাজমা আক্তার (১৮)। নাজমা আক্তার লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার লাহারকান্দি এলাকার পাটোয়ারী বাড়ির প্রবাসী মো. রাজুর স্ত্রী। ৭ সন্তানের মধ্যে ৪টি মেয়ে ৩টি ছেলে। শুক্রবার (১২ এপ্রিল) রাত ৯ টা ৪৫ মিনিটে ওই ৭ সন্তানের জন্ম হয়। হাসপাতালের ম্যানেজার ওমর ফারুক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান ৯ টায় ২০ মিনিটে প্রসব বেদনা নিয়ে নাজমা আক্তার হাসপাতালে ভর্তি হয়। ২৫ মিনিট পর স্বাভাবিকভাবে ৭ সন্তানের জন্ম দেন ওই প্রসতি। মা নাজমা আক্তার সুস্থ্য থাকলেও ৭ সন্তান সুস্থ্য নেই বলে জানিয়েছে চিকিৎসক। হাসপাতাল থেকে জানা গেছে, নিদিষ্ট সময়ের আগে (মাত্র ৫ মাসে) সন্তান প্রসব হাওয়া ৭ সন্তান সুস্থ নেই। তাদের চোখ ফোটেনি। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক। লক্ষ্মীপুর সিটি হাসপাতালের চিকিৎসক ডা.মো. আবদুল্
লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল নিজ হাতে পরিষ্কার করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান টিপু

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতাল নিজ হাতে পরিষ্কার করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান টিপু

খবর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগের সভাপতি একেএম সালাহ উদ্দিন টিপু সদর হাসপাতাল নিজ হাতে পরিস্কার করছেন। হাসপাতালের বারেন্দায়, আঙ্গিনায় ও বিভিন্ন ওয়ার্ডে স্থাপন করেছেন বৈদ্যুতিক বাতি। দিয়েছেন টয়লেট ক্লিনার, ব্রাশ, বালতি, ঝাড়ু ও ময়লা রাখার ঝুড়ি । বুধবার (১০ এপ্রিল) রাত ১০ থেকে ১২টা পর্যন্ত যুবলীগ নেতা সালাহ উদ্দিন টিপু হাসপাতালে রোগীদের ব্যবহৃত টয়লেট, মেঝে, দেওয়ালসহ আশপাশের আঙ্গিনা পরিস্কার করেন। এতে অংশ নেন যুবলীগের নেতাকর্মীরা। এসময় হাসপাতালের ভিতর থেকে অন্তত ৪০ বালতি ময়লা বের করা হয়। লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে প্রতিদিন যথাযথভাবে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন না করায় করায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন ওয়ার্ডে বৈদ্যুতিক বাতি নেই, টয়লেট ক্লিনার, ব্রাশ, ঝাড়ু, ঝুড়ি ও বালতি নেই । এসব ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ প্রয়োজনী উদ্যোগ গ্রহণ না করায় উপজেলা চেয়ারম্যার ট
সৌদিতে সিলেন্ডার বিস্ফোরণে রায়পুরের যুবকের মৃত্যু

সৌদিতে সিলেন্ডার বিস্ফোরণে রায়পুরের যুবকের মৃত্যু

টপ সেকশন-২, রায়পুর, লক্ষ্মীপুর, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : সৌদি আরবের রিয়াদ শহরের একটি বাসায় নিজের জন্য রান্না করতে গিয়ে গ্যাস সিলি-ার বিস্ফোরণে অগ্নিদগ্ধ ইসমাইল হোসেনের (৪০) মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) দুপুরে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন নিহতের স্বজনরা। ইসমাইল জেলার রায়পুর উপজেলার উত্তর রায়পুর গ্রামের আমান উল্লার ছেলে। তার মরদেহ সৌদি আরবের রিয়াদ হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। নিহতের স্ত্রী ফেন্সি বেগম জানান, ১০ বছর ধরে তার স্বামী সৌদি আরবের রিয়াদ শহরে একটি আবাসিক ভবনের তত্ত্বাবধায়কের কাজ করেন। ৪ বছর আগে বাড়িতে এসে ছুটি শেষে আবার ফিরে যান। ১৩ দিন আগে ইসমাইল রিয়াদ শহরে একটি বাসায় নিজের জন্য রান্না করতে গিয়ে গ্যাস সিলেন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ হন। মুখসহ শরীরের বেশীরভাগ অংশ আগুনে পুড়ে যায়। সহকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। মঙ্গলবার সকালে তার বন্ধু আলা উদ্দিন ফোনে জানান ইসমাইল মারা গেছেন। ইসমাইলের মৃত্যুর সংবাদে স্ত্রী
কমলনগরের মেঘনায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ নিধন চলছে

কমলনগরের মেঘনায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ নিধন চলছে

কমলনগর, টপ সেকশন-১, সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক : মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি ও জাটকা রক্ষায় লক্ষ্মীপুরের মেঘনায় দুই মাস সব ধরনের মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও আইন মানছেনা জেলেরা। প্রতিদিন কমলনগরে সারি-সারি নৌকা নিয়ে শত-শত জেলে মহোসৎবে জাটকাসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ নিধন করছেন। মৎস্য বিভাগ, কোস্টগার্ড ও স্থানীয় প্রশাসনের প্রয়োজনীয় তৎপরতা না থাকায় এবং আইনের যথাযথ প্রয়োগ না হওয়ায় মাছ শিকার চলেছ। দাদনদার-মহাজনরা সংশ্লিষ্টদের ম্যানেজ করে জেলেদের নদীতে পাঠায় এমন অভিযোগ সবার মুখে মুখে। এমন পরিস্থিতিতে মাছের উৎপাদন ব্যাহত হয়ে সরকারের কাঙ্খিত উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন না হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। সোমবার বিকালে ও মঙ্গলবার সকালে কমলনগরের মেঘনা নদীর বিভিন্ন এলাকায় সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, জেলেরা নিবিঘেœ মাছ শিকার করছেন। বেশির ভাগ জেলে জাটকা শিকারে ব্যবহার করছেন অবৈধ কারেন্ট জাল। বাঁধা জাল দিয়ে মারছেন ইলিশের পোনা। মশারি জাল দিয়ে নিধন করছে পোয়ামা