শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০সত্য ও সুন্দর আগামীর স্বপ্নে...

সাংবাদিক বান্ধব নেতারাই জনপ্রিয়…

সাংবাদিক বান্ধব নেতারাই জনপ্রিয়…

নিজস্ব প্রতিবেদক : পরোপকারী ও মানবিক গুনাবলি না থাকলে প্রকৃত নেতা হওয়া যায় না। সততা-দক্ষতা, যোগ্যতা ও বুদ্ধিমত্তা হচ্ছে আদর্শ নেতার বৈশিষ্ট। নেতা হতে শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও বিশ্বাস অর্জন করতে হয়। আশার প্রতিক ও সাংবাদিক বান্ধব না হলে কোনো নেতাই জনপ্রিয় হন না। লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি আহত সাংবাদিকের মুঠোফোনে তার শারিরীক অবস্থার খোঁজখবর ও হাসপাতালে দেখতে গিয়ে বেশ কয়েকজন নেতা তাদের যোগ্যতার পরিচয় দিয়েছেন। এতে প্রমান হয়েছে তারা সাংবাদিক বান্ধব। ও মানবিক গুনাবলির অধিকারি। বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বিকালে শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানির বাড়ি ভাঙচুর; বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলার ভিডিও চিত্র ধারন করায় মাছরাঙা টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি শাকের মোহাম্মদ রাসেলকে পিটিয়ে মাথা পাটিয়ে দেয় ছাত্রলীগ কর্মীরা। ছিনিয়ে নেয় তার ক্যামেরা। সহকর্মী সাংবাদিকরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। খবর পেয়ে মুঠোফোনে খোঁজখবর নিয়েছেন কেন্দ্রীয় বিএনপি’র প্রচার সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, লক্ষ্মীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আল হাজ্ব মো. শাহজাহান, লক্ষ্মীপুর পৌর সভার মেয়র আল হাজ্ব এম এ তাহের, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি এম আলাউদ্দিন, জেলা বিএনপি’র সভাপতি আবুল খায়ের ভূঁইয়া, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন, জেলা পরিষদের সদস্য ফরিদা ইয়াসমিন লিকা, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক ইমতিয়াজ। আহত সাংবাদিককে হাসপাতালে দেখতে গিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রাসেল মাহমুদ মান্না, সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম ভুলু, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক হিজবুল বাহার রানা, লক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চৌধুরী মাহমুদুন্নবী সোহেল ও সাধারণ সম্পাদক রাকিব হোসেন লোটাস। এছাড়াও সহকর্মী সাংবাদিকরা তাকে দেখতে হাসপাতালে ছুঁটে যায়। আহত সাংবাদিক বলেন, এমন পরিস্থিতিতে না পড়লে বুঝতামনা আন্তরিকতা ও ভালোবাসা গভীরতা। রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও সহকর্মীরাসহ যারা আমার খোঁজখবর নিয়েছেন; দেখতে এসেছেন ও দোয়া করছেন-আমি সবার কাছে কৃতজ্ঞ। আমরা বিশ্বাস করতে চাই লক্ষ্মীপুরের নেতারা বুদ্ধিমান ও সাহসী। কাউকে অনুসরণ করেন না; সবাই তাদের অনুসরণ করেন। হৃদয়ে স্থান করে নেওয়ার জন্য আমৃত্য চেষ্টা করেন এবং তারা সবাই সাংবাদিক বান্ধব।
  • Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Print
Copy link
Powered by Social Snap