সোমবার, ৬ জুলাই ২০২০সত্য ও সুন্দর আগামীর স্বপ্নে...

লক্ষ্মীপুরে ছাত্রী গণধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার ৩

লক্ষ্মীপুরে ছাত্রী গণধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : লক্ষ্মীপুরের সদর উপজেলার দাসেরহাটে অষ্টম শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রীকে গণধর্ষণের ৭ দিন পর মামলা দায়ের করা হয়েছে। রোববার (৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে এ ঘটনায় গ্রেফতার ৩ আসামিকে লক্ষ্মীপুর জেলা আদালতে হাজির করলে তারা ঘটনার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়। পরে তাদেরকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। এরআগে শনিবার (৮ সেপ্টেম্বর) রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানায় ৫ জনকে আসামি করে এ মামলা করেন। রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন স্থান থেকে ৩ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশ ও ভূক্তভোগী পরিবার জানায়, গত শনিবার (১ সেপ্টেম্বর) সকালে মাদ্রাসা যাওয়ার পথে ওই ছাত্রীকে জোরপূর্বক আসামিরা তুলে নিয়ে একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে গণধর্ষণ করে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন উপজেলার চরশাহীর সৈয়দপুর গ্রামের সিরাজ উদ্দিনের ছেলে মো.সবুজ (২০), মো. আলমের ছেলে রিফাত (২০), ইলিয়াস মিয়ার ছেলে কামরুল (২১)। এছাড়া আসামি সৈয়দপুর গ্রামের জালাল আহম্মদের ছেলে আবির হোসেন ভুট্টু ও গোবিন্ধপুর গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে কামরুল হোসেন পলাতক রয়েছে। থানা পুলিশ জানায়, সদর উপজেলার দাসের হাটে মাদ্রাসা যাওয়ার জন্য ঘটনারদিন সকালে ওই ছাত্রী বাড়ি থেকে বের হয়। এসময় বাড়ি থেকে কিছু দূর আসলে ভুট্টুসহ অভিযুক্তরা ছাত্রীর পথরোধ করে। একপর্যায়ে জোরপূর্বক ওই ছাত্রীকে তুলে নিয়ে একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে হাত-পা বেঁধে পালাক্রমে ধর্ষণ করে তারা। পরে তাকে অচেতন অবস্থায় রেখে তারা পালিয়ে যায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ছাত্রীকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ব্যাপারে চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, গ্রেপ্তার আসামিরা আদালতে দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। পলাতক দুই আসামিকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

  • Facebook
  • Twitter
  • LinkedIn
  • Print
Copy link
Powered by Social Snap