বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯সত্য ও সুন্দর আগামীর স্বপ্নে...

কমলনগরে তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনায় সাবেক স্বামী গ্রেফতার

কমলনগরে তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনায় সাবেক স্বামী গ্রেফতার

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুরে কমলনগরে তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীর চুল কেটে নির্যাতন ও বন্ধুদের নিয়ে গণধর্ষণের ঘটনায় সাবেক স্বামী আবুল কালামকে(৩৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর)রাতে নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁও থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।আবুল কালাম তোরাবগঞ্জ এলাকার আনোয়ার আলীর ছেলে।

শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে কমলনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি/তদন্ত) মো. আলমগীর হোসেন গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সোনারগাঁও থানা পুলিশের সহযোগীতায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (১৭ নভেম্বর) সন্ধ্যায় কমলনগরের তোরামগঞ্জ এলাকা থেকে তালপ্রাপ্ত স্ত্রীকে আবুল কালাম তার আরও দুই মিলে অপহরণ করে রাতভর গণধর্ষণ করে । শনিবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে নির্যাতিত ওই নারীকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নির্যাতিত নারী কমলনগর উপজেলার চর কালকিনি গ্রামের এক দরিদ্র কৃষকের মেয়ে।

স্বজনরা জানায়, ১০ বছর আগে আবুল কালামের সঙ্গে ওই নারীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে একাধিকবার নানা অজুহাতে যৌতুক নেন কালাম। এরপর আরও যৌতুকের দাবি করতে থাকেন তিনি। গত বছর ৫০ হাজার টাকার যৌতুকের জন্য চাপ দেন তিনি। টাকা না দেওয়ায় নির্যাতন করতে থাকেন স্ত্রীকে। উপায় না দেখে আদালতের মাধ্যমে ছয় মাস আগে কালামকে তালাক দেন তার স্ত্রী। এর জের ধরে কালাম তার দুই বন্ধুকে নিয়ে তালাক দেওয়া স্ত্রীকে তুলে নিয়ে গিয়ে চুল কেটে নির্যাতন, মারধর ও গণধর্ষণ করেন।

ঘটনার পরের দিন শনিবার (১৮ নভেম্বর) নির্যাতিত ওই নারীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। মামলা অভিযুক্ত আসামি সাবেক স্বামীর বন্ধু তোরাবগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা মো. সিরাজ মিয়ার ছেলে মো. বাবলুকে ওই রাতেই গ্রেফতার করে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে আত্নগোপনে চলে যায় আবুল কালাম।